Tag Archives: Salman F Rahman

Salman F Rahman new ATCO president

salman_f_rahman_beximco

Salman F Rahman, chairman of Independent Television, was elected president of ATCO (Association of Television Channel Owners) yesterday. Ekattor TV Managing Director Mozammel Babu and Desh TV Deputy Managing Director Arif Hasan were elected senior vice president and vice president respectively of the private television channel owners’ association in Bangladesh.  The 15-member committee has been elected for a 2-year tenure. After the election, the new committee expressed its optimism to take forward the country’s rapidly expanding media industry. New ATCO President Salman F Rahman said the election of the new committee will add momentum to the activities of ATCO. He also expressed hope that various problems that exist in this industry will be solved through the new committee. The election to ATCO’s new committee was held at a hotel in the capital.

Read Source: http://www.theindependentbd.com/post/95771

সার্কভুক্ত দেশগুলোতে অবিশ্বাস্য প্রবৃদ্ধির সম্ভাবনা রয়েছে : সালমান এফ রহমান

1492363473_20.jpg
অর্থনৈতিক রিপোর্টার : আওয়ামী লীগ সভানেত্রীর বেসরকারি খাতবিষয়ক উপদেষ্টা সালমান এফ রহমান বলেছেন, সার্কের দেশগুলোর মধ্যে সীমানা মানুষের তৈরি। সার্কভুক্ত দেশগুলো এক জোট হলে, নিজেদের মধ্যে সহযোগিতা বৃদ্ধি করলে অবিশ্বাস্য প্রবৃদ্ধির সম্ভাবনা তৈরি হবে।
গতকাল রোববার রাজধানীর সোনারগাঁও হোটেলে দক্ষিণ এশিয়ার অর্থনৈতিক সম্ভাবনা নিয়ে সার্ক চেম্বার আয়োজিত এক আলোচনা সভায় তিনি এসব কথা বলেন। এতে সার্কভুক্ত দেশগুলোর ব্যবসায়ী, গবেষক ও সরকারি কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।
সার্ক চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রির (সার্ক সিসিআই) সভাপতি সুরাজ বৈদ্য বলেন, দক্ষিণ এশিয়ার ৯৫ শতাংশ মানুষ আঞ্চলিক সহযোগিতা সংস্থা সার্কে বিশ্বাস করে। দক্ষিণ এশিয়ার দেশগুলোর ৯৯ দশমিক ৯৯ শতাংশ মানুষ ভালো। শূন্য দশমিক ১ শতাংশ সন্ত্রাসবাদী। এদের কারণে ভালো মানুষেরা ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে।
সুরাজ বৈদ্য বলেন, সার্ক দেশগুলোর ভালো মানুষেরা এ অঞ্চলে অবাধে চলাচল করতে পারে না। এটা কি সার্কের আশাবাদের প্রতি ন্যায্য আচরণ? সন্ত্রাসীরা কিন্তু ঠিকই ঘুরে বেড়ায়। তাদের ভিসার প্রয়োজন হয় না।
সভায় আলোচনায় সার্কভুক্ত দেশগুলোর মধ্যে বাণিজ্যের ক্ষেত্রে বিভিন্ন সমস্যা নিয়ে আলোচনা হয়। বক্তারা বলেন, অন্য অঞ্চল যেখানে নিজেদের মধ্যে বড় অংশের বাণিজ্য করে, সেখানে সার্কের দেশগুলো মোট বাণিজ্যের মাত্র ৫ শতাংশ নিজেদের মধ্যে করে।
অনুষ্ঠানে এফবিসিসিআইয়ের সহসভাপতি মাহবুবুল আলম, সাবেক তত্ত¡াবধায়ক সরকারের উপদেষ্টা ম তামিম, পাকিস্থানের বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের যুগ্ম সচিব তৈমুর তাজমহল, ঢাকায় পাকিস্থান দূতাবাসের কমার্শিয়াল কাউন্সিলর সুলেমান খান, নেপালের গবেষক থ্রিশিজ দাহাল, শ্রীলঙ্কার গবেষক কিথমিনা হেওয়াজ বক্তব্য দেন।

পর্দা উঠলো এশিয়া এলপিজি সামিটের

opening20170226132447_orig.jpg

ইন্টারন্যাশনাল কনভেনশন সিটি বসুন্ধরায় (আইসিসিবি) বর্ণাঢ্য আয়োজনের মধ্য দিয়ে শুরু হলো চতুর্থ এশিয়া এলপিজি সামিট-২০১৭। বাংলাদেশে প্রথমবারের মতো আয়োজিত এ সামিটের উদ্বোধন করেন বিদ্যুৎ জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদ।
রোববার (২৬ ফেব্রুয়ারি) উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন, জ্বালানি বিভাগের সচিব নাজিমউদ্দিন চৌধুরী, এলপিজি ইন্ডাস্ট্রিজ অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ’র সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রীর প্রাইভেট খাত বিষয়ক উপদেষ্টা সালমান এফ রহমান, বসুন্ধরা গ্রুপের ভাইস চেয়ারম্যান সাফিয়াত সোবহান, ইস্ট কোস্ট গ্রুপের চেয়ারম্যান আজম জে চৌধুরী।
বসুন্ধরার মতো জায়ান্ট প্রতিষ্ঠানসহ দেশি ও বিদেশি ৬৩টি প্রতিষ্ঠান অংশ নিয়েছে এই সামিটে, যারা এলপি গ্যাস বাজারজাত, সিলিন্ডার ও অন্যান্য খুচরা যন্ত্রাংশের উৎপাদক হিসেবে কাজ করছে। প্রতি দিন সকাল ৯টা থেকে সন্ধ্যা ৬টা পর্যন্ত সামিট উন্মুক্ত থাকবে।
উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে বিদ্যুৎ প্রতিমন্ত্রী বলেন, এক সময় বলা হয়েছে বাংলাদেশ গ্যাসের উপরে ভাসছে। এইটা ছিল গ্যাস রপ্তানি করার জন্য বিএনপি-জামায়াত জোটের স্টান্ডবাজি। কোনো সমীক্ষা ছাড়াই এমন কথা বলা হয়েছিল। প্রাকৃতিক গ্যাস মূল্যবান সম্পদ। আমরা এর সঠিক ব্যবহার নিশ্চিত করতে চাই। এ জন্য শুধু শিল্পে এর ব্যবহার থাকবে। অন্যান্য খাতে সরবরাহ বন্ধ করে দেওয়ার কথা ভাবছে সরকার। এ জন্য আমরা এলপিজির ওপর গুরুত্ব দিচ্ছি।
প্রতিমন্ত্রী বলেন, আমি তিন বছর সময় চেয়েছিলাম সারাদেশে এলপিজি পৌঁছে দেওয়ার জন্য। এর মধ্যে এক বছর গেছে। আশা করছি, আগামী দুই বছরের মধ্যে দেশের সত্তরভাগ লোকজন এলপি গ্যাসের আওতায় চলে আসবে।

নসরুল হামিদ বলেন, এলপি গ্যাস এলএনজির চেয়ে সাশ্রয়ী। আমরা গৃহস্থালির পাশাপাশি বিদ্যুৎ ‍উৎপাদন ও শিল্পে এলপিজি ব্যবহারের পরিকল্পনা নিয়েছি।

সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে প্রতিমন্ত্রী বলেন, আমাদের দেশে গভীর সমুদ্র বন্দর নেই। লাইটারেজে এলপিজি আনতে হয়। এতে করে পরিবহন খরচ অনেক বেড়ে যায়। গভীর সমুদ্র বন্দর নির্মাণ শেষ হলে ৩০ শতাংশ দাম কমে আসবে।
আগামী দুই বছরের মধ্যে গভীর সমুদ্র বন্দর নির্মাণ শেষ হবে বলেও আশাবাদ ব্যক্ত করেন প্রতিমন্ত্রী।

কোম্পানি ভেদে দামের কমবেশি প্রসঙ্গে প্রতিমন্ত্রী বলেন, আমরা একটি নীতিমালা প্রণয়নের উদ্যোগ নিয়েছি। আগামী দু’ মাসের মধ্যেই এই নীতিমালা চলে আসবে। তখন এই তারতম্য থাকবে না।
সরকার এলপিজিকে নিরাপদ, সহজলভ্য ও সাশ্রয়ী মূলে জনগণের হাতে পৌঁছে দিতে চায় বলে মন্তব্য করেন নসরুল হামিদ।

তিন দিনব্যাপী এই এলপিজি সামিটের আয়োজন করেছে আন্তর্জাতিক এলপিজি অ্যাসোসিয়েশন, অল ইভেন্ট গ্রুপ-সিঙ্গাপুর ও বাংলাদেশের গ্লোবাল ম্যানেজমেন্ট সার্ভিসেস লিমিটেড। এর আগে তিনটি আসর বিভিন্ন দেশের মাটিতে হলেও এবারই প্রথম বাংলাদেশে এই সামিট আনুষ্ঠিত হচ্ছে।
Read Source:http://www.banglanews24.com/economics-business/news/bd/556807.details

Bangladesh respected the main holder transport from India at Pangaon Terminal

salman f rahmanBangladesh invited ‘MV Nou Kollan-1’, the primary holder send from India at Pangaon Inland Container Terminal in Keraniganj. In 2015, a Coastal Shipping Agreement was marked between the two nations, allowing direct transportation of freight vessel over the outskirts. India has named this collusion as an ‘appreciated improvement’.

This progression will incredibly upgrade the network amongst India and Bangladesh as the driving time will get lessened from 30-40 days to 4-10 days.

Dignitaries like Secretary, Ministry of Shipping, Bangladesh-Ashoke Madhab Roy, Shipping Minister Shajahan Khan, Commerce Minister Tofail Ahmed, State Minister for Power, Energy and Mineral Resources Nasrul Hamid and Vice Chairman of Beximco Group Salman F Rahman graced the occasion of emptying 65 holders conveyed by the ship.

Talking on the occasion, Shipping Minister Shajahan Khan stated, “The holder development operation from India to Bangladesh will be proceeded to significantly save money on both time and cost.”

He additionally included, “Purchasers from India and abroad will be profited taking after the operation of the Pangaon Container Terminal. We will set up corners of a few banks in conjunction with Sonali Bank for giving keeping money offices to business elements.”

Respecting the entry of the compartment send worked by Riverline Logistics and Transport Ltd. Indian High Commissioner to Dhaka Harsh Vardhan Shringla stated, “Without precedent for history, Bangladesh has respected a load deliver from India; it is in fact a notorious date.”

“With this assention, now load boats can without much of a stretch drive amongst Dhaka and Kolkata in only 3-4 days. This will turn out to be a financially savvy and faster method of transportation of products. Additionally, it will enormously decongest the streets and land custom stations through which dominant part of the two-sided exchange happens as of now,” said Salman F Rahman.

Salman F Rahman remains Sheikh Hasina’s adviser

The vice chairman of Beximco was notified of his appointment in a letter signed by the ruling party’s general secretary Obaidul Quader on Sunday.

The party hopes Salman F Rahman will use his ‘energy, wisdom and merits’ for developing the private sector, the letter says.

salman-f-rahman-awami-league

Salman, who headed the Federation of Bangladesh Chamber of Commerce and Industry (FBCCI) from 1994 to 1996, entered politics in the mid 1990s.

He founded a party ‘Samriddhya Bangladesh Andolan’ but later joined the Awami League.

 

He was made the private sector development adviser to Sheikh Hasina after the Awami League came to power in 2009.

Salman F Rahman and his elder brother Sohail Rahman started their business in 1966 with a jute mill they inherited.

They began the Bangladesh Export Import Company (Beximco) after their mill was nationalised following Bangladesh’s liberation from Pakistan in 1971.

The company began trading in medicines. Beximco is currently the country’s largest business group which employs over 55,000 people.

The group has interests in textiles, pharmaceuticals, ceramics, real estate, energy, trading, ICT and media, financial services, engineering and construction.

Its products are exported to 43 countries, according to the group’s website.

Salman is currently chairman of the IFIC Bank and owns English daily ‘The Independent’ and Independent Television.

The businessman, besides heading the FBCCI, was also president of Bangladesh Textile Mills Association, SAARC Chamber of Commerce and Industry, Bangladesh Association of Pharmaceutical Industries and top sports organisation Abahani Limited.

He had also been a member of the board of directors at Dhaka Stock Exchange (DSE).

Source: http://bdnews24.com/

Beximco Power Company

Beximco Group to construct power plants

Country’s largest company Beximco Group signed a treaty with China Energy Engineering Corporation on developing several energy projects. China Energy Engineering Corporation is a Fortune 500 Company and currently one of the biggest power solution supplier companies in China and in the world.

CEO of Beximco Power Company Ltd, Ajmal Kabir, signed the agreement at Beximco Group’s head office. President Fu Hongwei signed the agreement on China Energy Engineering Corporation’s behalf. Beximco Group’s chairman Sohail F Rahman, its vice chairman Salman F Rahman, director Shayan F Rahman and Chinese Ambassador to Bangladesh Ma Mingqiang were present at the occasion. After signing the agreement, vice chairman of Beximco Group, Salman F Rahman said that it was a significant day for the company. He said the projects will have significant contribution in the energy sector of Bangladesh. Salman F Rahman is one of the top businessmen in Bangladesh and has always looked for new and challenging ventures. Signing agreements with China Energy Engineering Corporation of four energy projects is another feather to his list of contribution to Bangladesh’s economy.

Beximco Group plans to work on four major projects in Bangladesh with China Energy Engineering Corporation. Among these four, one is an 8 MW capacity solar power plant to be developed at the Beximco Industrial Park premises, one is a 660 MW coal fired power plant, and one is a 200 MW solar power plant in Gaibandha. The fourth one is on setting up a large nationwide distribution system. All projects will be developed with state of the art technology.

Beximco Group was founded in the early 1970’s by Sohail F Rahman and Salman F Rahman. The company has strong presence in both domestic and international markets.

Salman F Rahman reelected as IFIC Bank chairman

Eminent businessman of the country Salman F Rahman has recently been reelected chairman of IFIC Bank Limited, says a press release.

salman_f_rahman
Upon completion of his first term in the Board of the bank, he was reelected as a director of the Bank in its 39th Annual General Meeting (AGM) held on July 14, 2016.
He is the Vice-Chairman of BEXIMCO Group – the largest private sector group in Bangladesh. He is a pioneer in establishing a wide range of industries including textiles, trading, marine food, real estate development, hospitality, construction, information and communication technologies, media, ceramics, aviation, pharmaceuticals and energy.
He was the President of FBCCI, the apex organisation of businessmen of the country. He is associated with many social and charitable organisations.