‘বিদেশি টেলিভিশন চ‌্যানেলে দেশি পণ‌্যের বিজ্ঞাপন বন্ধ হয়েছে’

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশে বাংলাদেশে সম্প্রচারিত বিদেশি টেলিভিশন চ‌্যানেলে দেশি পণ‌্যের বিজ্ঞাপন বন্ধ হয়েছে বলে জানিয়েছেন মিডিয়া ইউনিটির উপদেষ্টা সালমান এফ রহমান।

আজ শনিবার রাজধানীর ঢাকা ক্লাব মিলনায়তনে মিডিয়া ইউনিটি আয়োজিত আলোচনা সভায় তিনি এসব কথা বলেন।

salman_f_rahman_beximco

বিদেশি চ্যানেলে দেশি বিজ্ঞাপন প্রচারের মাধ্যমে দেশের টাকা অবৈধভাবে বিদেশে পাচার হয়ে যাচ্ছে অভিযোগ তুলে তা বন্ধের দাবিতে গত ৫ নভেম্বর আন্দোলন শুরু করে মিডিয়া ইউনিটি।

অনুষ্ঠানে সালমান এফ রহমান বলেন, এরই মধ্যে বিজ্ঞাপন যে আসত তা বন্ধ হয়ে গেছে। মাননীয় তথ্যমন্ত্রীও নোটিশ দিয়েছিলেন যাঁরা ডাউনলিংক করেন তাঁদের। বিদেশি চ্যানেলকেও জানিয়ে দেওয়া হয়েছে যে বিদেশি চ্যানেলে আমাদের বাংলাদেশি বিজ্ঞাপন দেখাতে পারবে না।

মিডিয়া ইউনিটির আহ্বায়ক ও একাত্তর টেলিভিশনের প্রধান নির্বাহী মোজাম্মেল বাবু বলেন, আমাদের চূড়ান্ত বিজয় অর্জিত হয়েছে। আমরা আমাদের ধারাবাহিক আন্দোলন স্থগিত ঘোষণা করছি।

Beximco to distribute Norwegian composite LPG cylinders in Bangladesh

As natural gas is a limited resource in Bangladesh, the government aims to reserve this energy source for industrial applications and power generation.

Piped natural gas for households is planned to be replaced with bottled LPG, and it is therefore anticipated that the demand for LPG cylinders will be significant in the coming years.

beximco-lpg

Enter a caption

Hexagon Composites` subsidiary Hexagon Ragasco has entered into a four-year frame agreement with Beximco Group for sales of composite LPG cylinders into the fast growing Bangladeshi market. –

The parties are targeting a volume of 1.4 million cylinders over the four-year period of the frame agreement.

The first delivery under the frame agreement will be shipped in the fourth quarter of this year. The total value of the initial order is approximately USD 2.1 million (approximately NOK 17 million).

Hexagon Ragasco is the world`s leading manufacturer of composite LPG cylinders with more than 11 million units in commercial use. The high-volume, highly automated production facility in Raufoss, Norway is the most advanced of its kind world-wide.

Hexagon Ragasco`s products are unique and provide many advantages over traditional steel cylinders in terms of safety and user-friendliness.

“We expect that this agreement is the start of a long-term collaboration with Beximco Group,” says Skjalg S. Stavheim, Managing Director of Hexagon Ragasco. “With a premium product offering considerable advantages over steel cylinders, we are confident that the composite LPG cylinders will help to make domestic use of LPG in Bangladesh safer and more user-friendly.”

The Beximco Group is one of Bangladesh`s largest and most diversified industrial conglomerates with an annual turnover in excess of USD one billion and employing 65,000 people.

“We are very pleased to have entered into a partnership with Hexagon Ragasco. The lightweight LPG cylinders provide numerous advantages over traditional steel cylinders in terms of safety, corrosion-resistance and user-friendliness, and will give improved handling and experience for the distributors and consumers,” says Ajmal Kabir, Group Director and CEO, Petroleum & LNG at Beximco Group. “With our leading position, we aim to enter the LPG business in Bangladesh on a large scale.”

Source: Reuters

প্রধানমন্ত্রীর উপদেষ্টা হলেন সালমান এফ রহমান

বাংলাদেশের অন্যতম শীর্ষ ব্যবসায়ী সালমান এফ রহমানকে আওয়ামী লীগ সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার বেসরকারি খাত উন্নয়ন বিষয়ক উপদেষ্টা হিসেবে নিয়োগ দেওয়া হয়েছে। রোববার আওয়ামী লীগের নব নির্বাচিত সাধারণ সম্পাদক ও সড়ক পরিবহন মন্ত্রী ওবায়দুল কাদের স্বাক্ষরিত এক চিঠিতে বিষয়টি নিশ্চিত করা হয়।

%e0%a6%b8%e0%a6%be%e0%a6%b2%e0%a6%ae%e0%a6%be%e0%a6%a8-%e0%a6%8f%e0%a6%ab-%e0%a6%b0%e0%a6%b9%e0%a6%ae%e0%a6%be%e0%a6%a8_%e0%a6%86%e0%a6%93%e0%a7%9f%e0%a6%be%e0%a6%ae%e0%a7%80-%e0%a6%b2%e0%a7%80

সালমান এফ রহমান তার শ্রম, মেধা ও প্রজ্ঞা দিয়ে বেসরক‍ারি খাতের উন্নয়নে নতুন গতিবেগের সঞ্চার করবেন বলেও আশা প্রকাশ করা হয় চিঠিতে।

সফল ব্যবসায়ী সালমান এফ রহমান বেক্সিমকোর প্রতিষ্ঠাতা ও আইএফআইসি ব্যাংক লিমিটেডের চেয়ারম্যান। তিনি ব্যবসায়ীদের শীর্ষ সংগঠন দ্য ফেডারেশন অব বাংলাদেশ চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ড্রাস্ট্রিজ (এফবিসিসিআই) এরও একজন সফল নেতা। এছাড়া আবাহনী ক্রীড়া চক্রের চেয়ারম্যান হয়ে ক্রীড়া সংগঠক হিসেবেও সুনাম কুড়িয়েছেন তিনি। মনোনীত হয়েছিলেন ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জের (ডিএসই) পরিচালক।

বাংলাদেশ অ্যাসোসিয়েশন অব পাবলিকলি লিস্টেড কোম্পানিজ ও বাংলাদেশ ওষুধ শিল্প সমিতির সভাপতি হিসেবেও সুনাম কুড়িয়েছেন সালমান এফ রহমান। এছাড়াও তিনি বাংলাদেশ এন্টারপ্রাইজ ইনস্টিটিউট (বিএনআই) ও ইংরেজি দৈনিক ইনডিপেনডেন্ট-এর সম্পাদকমণ্ডলীর চেয়ারম্যান।

সালমান এফ রহমান ১৯৭২ সালে বাংলাদেশ রপ্তানি ও আমদানি কোম্পানি (বেক্সিমকো গ্রুপ) প্রতিষ্ঠা করেন। বেলজিয়াম, ফ্রান্স, ব্রিটেন, জার্মানি ও নেদারল্যান্ডে শুরু করেন সীফুড ও হাড় গুঁড়া রপ্তানি। ওই রপ্তানির আয় দিয়ে শুরু করেন ওষুধ আমদানি। পরেবর্তীতে একের পর এক সফল প্রতিষ্ঠানের জন্ম দিয়ে হয়ে ওঠেন দেশের অন্যতম সফল ব্যবসায়ী নেতা।

Salman F Rahman remains Sheikh Hasina’s adviser

The vice chairman of Beximco was notified of his appointment in a letter signed by the ruling party’s general secretary Obaidul Quader on Sunday.

The party hopes Salman F Rahman will use his ‘energy, wisdom and merits’ for developing the private sector, the letter says.

salman-f-rahman-awami-league

Salman, who headed the Federation of Bangladesh Chamber of Commerce and Industry (FBCCI) from 1994 to 1996, entered politics in the mid 1990s.

He founded a party ‘Samriddhya Bangladesh Andolan’ but later joined the Awami League.

 

He was made the private sector development adviser to Sheikh Hasina after the Awami League came to power in 2009.

Salman F Rahman and his elder brother Sohail Rahman started their business in 1966 with a jute mill they inherited.

They began the Bangladesh Export Import Company (Beximco) after their mill was nationalised following Bangladesh’s liberation from Pakistan in 1971.

The company began trading in medicines. Beximco is currently the country’s largest business group which employs over 55,000 people.

The group has interests in textiles, pharmaceuticals, ceramics, real estate, energy, trading, ICT and media, financial services, engineering and construction.

Its products are exported to 43 countries, according to the group’s website.

Salman is currently chairman of the IFIC Bank and owns English daily ‘The Independent’ and Independent Television.

The businessman, besides heading the FBCCI, was also president of Bangladesh Textile Mills Association, SAARC Chamber of Commerce and Industry, Bangladesh Association of Pharmaceutical Industries and top sports organisation Abahani Limited.

He had also been a member of the board of directors at Dhaka Stock Exchange (DSE).

Source: http://bdnews24.com/

যুক্তরাষ্ট্রে বেক্সিমকো ফার্মার আরেকটি ওষুধ অনুমোদন

বেক্সিমকো ফার্মার দ্বিতীয় পণ্য হিসেবে মার্কিন খাদ্য ও ওষুধ নিয়ন্ত্রকদের অনুমোদন পেয়েছে কার্ডিওভাসকুলার ড্রাগ বেটাপেসের জেনেরিক ভার্সন সোটালোল হাইড্রোক্লোরাইড।

ওষুধ ও রসায়ন খাতের

US market with Beximco Pharma

তালিকাভুক্ত কোম্পানিটি জানায়, এর আগে ২০১৫ সালের জুনে তাদের প্রথম ওষুধ হিসেবে ফুড অ্যান্ড ড্রাগস অ্যাডমিনস্ট্রেশনের (ইউএস এফডিএ) অনুমোদন পায় কার্ভোডিলল। দ্বিতীয় পণ্যটি অনুমোদনের মধ্য দিয়ে যুক্তরাষ্ট্রে ওষুধ রফতানিতে আরেক ধাপ এগিয়ে গেল তারা। এ অনুমোদন লাভের ফলে বেক্সিমকো ফার্মা বিভিন্ন মাত্রার (৮০ মিলিগ্রাম, ১২০ ও ১৬০ মিলিগ্রাম) সোটালোল ট্যাবলেট উত্পাদন করতে পারবে। ২০১৭ সালের প্রথম প্রান্তিকের মধ্যে সোটালোল ট্যাবলেট বাজারজাত করার আশা করছে বেক্সিমকো ফার্মাসিউটিক্যালস। বর্তমানে যুক্তরাষ্ট্রে টেভা, কোয়ালিটেস্ট, এ্যাপোটেক্স ও স্যানডোজ নামে চারটি কোম্পানির সোটালোল জেনেরিক ট্যাবলেট বিক্রি হচ্ছে।

বেক্সিমকো ফার্মার ব্যবস্থাপনা পরিচালক নাজমুল হাসান এমপি বলেন, ‘আমাদের দ্বিতীয় পণ্য ইউএস এফডিএর এএনডিএ অনুমোদন লাভ করায় আমরা সত্যিই আনন্দিত। সোটালোল সম্পূর্ণভাবে আমাদের ইন হাউজ প্রডাক্ট। এ অনুমোদন সক্ষমতা বৃদ্ধি, রিসার্চ অ্যান্ড ডেভেলপমেন্ট ও রেগুলেটরি স্কিলে আমাদের ক্রমোন্নতিরই প্রতিফলন। আমরা যুক্তরাষ্ট্রের বাজারে কার্ভোডিলল রফতানি করছি। আরো বেশ কয়েকটি অনুমোদনের অপেক্ষায় রয়েছে। আমার বিশ্বাস, এর মধ্য দিয়ে বিশ্ববাজারে আমাদের অবস্থান আরো শক্তিশালী হবে।

বর্তমানে ৫০টিরও বেশি দেশে ওষুধ রফতানি করছে বেক্সিমকো ফার্মা । তাদের প্লান্ট ও উত্পাদন প্রক্রিয়া ইউএস এফডিএ, এজিইএস (ইইউ), টিজিএ অস্ট্রেলিয়া, হেলথ কানাডা, জিসিসি অ্যান্ড টিএফডিএসহ বিশ্বের বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ নিয়ন্ত্রক সংস্থা কর্তৃক স্বীকৃত।

IFIC Bank, IRRI launch agri-credit facility for farmers

IFIC Bank Limited has partnered with the International Rice Research Institute (IRRI), Bangladesh to pilot a new innovative agri-credit facility for farmers in Jessore and Satkhira districts.

IRRI, Bangladesh in coordination with IFIC Bank and with support from USAID’s mSTAR project launched this innovative intervention recently at the Rural Reconstruction Foundation (RRF) in Jessore, according to a statement..]

ific-bank-limited_44644

Enter a caption

IFIC Bank Limited has partnered with the International Rice Research Institute (IRRI), Bangladesh to pilot a new innovative agri-credit facility for farmers in Jessore and Satkhira districts.

A total of 25 farmers were also present at the event to have their registration done with the IFIC Bank’s MFS platform. In this system, mobile phones will be used to transfer money from banks to farmers. Farmers will be able to pay for inputs and services by transferring funds from their IFIC Mobile Bank account to the merchant account of retailers of IFIC Mobile Bank.

Kbd. Chaitanya Kumar Das, Director (Monitoring), Field Services Wing, Department of Agricultural Extension (DAE) graced the event as chief guest while Mr. Shah Md. Moinuddin, Deputy Managing Director and Head of Business, IFIC Bank Ltd, Kbd. Chandi Das Kundu, Additional Director, DAE, Jessore Region, and Shah Abul Kashem, Deputy General Manager, Bangladesh Bank, Khulna were present as special guest. The event was chaired by Mr. Timothy Russell, Chief of Party (CoP) of Feed the Future Bangladesh Rice Value Chain Project.

Under the pilot project, IFIC Bank Limited will offer farmers one of their newest product IFIC AAmar Account, which is a unique transactional account where both deposit and loan facilities are bundled in a single account. Farmers will operate the account and avail agri-credit through IFIC Mobile Banking system. IFIC Bank introduces this type of account for the first time in Bangladesh.

“This mobile phone based banking system will encourage farmers’ groups to invest as a business group which will eventually support the cash flow in the country’s economy. This type of initiatives is important to implement the government’s vision for 2041. Quality agri business depends on quality production, processing and marketing of agri products which can be expanded by a financial service like this – a mobile phone based banking transaction. This will save farmers’ time and money that now occurs from the hassle of commuting to a bank branch from their remote locations,” said Mr. Kbd. Chaitanya Kumar Das, Director (Monitoring), Field Services Wing, DAE.

“Farmers have to pay approximately 25 – 30% interest when they borrow from money lenders to continue their cultivation. So, IRRI and IFIC Bank joined forces with a proposal to develop an agri-credit program through mobile phone based banking. We are now here with you with this innovative financial service where the interest rate will be counted on the outstanding money only… This has been launched as a pilot project for six months. We want to continue this noble work in the future. So, your timely repayment of the loans will let us provide you with more credit as a tested party,” said Mr. Shah Md. Moinuddin, Deputy Managing Director and Head of Business, IFIC Bank.

Event participants, among others, were Mrs. Ferdousi Begum, Head of Retail Bank, Mr. Asaduzzaman, Head of Corporate Communication and Branding, and other regional and divisional employees and of IFIC Bank, Mr. M. Ataur Rahman, Team Lead of mSTAR/Bangladesh project, Mr. A.K.M. Ferdous, Senior Specialist – Agricultural Research and Development, and Hub Manager – Jessore,  Feed the Future Bangladesh Rice Value Chain Project, IRRI, Bangladesh, Mr. Md. Faruk Hossain, Senior Specialist – Agricultural Research and Development, and Hub Manager – Khulna,  Feed the Future Bangladesh Rice Value Chain Project, IRRI, Bangladesh, Bikash Kumar Roy, Deputy Director, Jagarani Chakra Foundation (JCF).

Source: http://www.thefinancialexpress-bd.com/

 

Beximco Power Company

Beximco Group to construct power plants

Country’s largest company Beximco Group signed a treaty with China Energy Engineering Corporation on developing several energy projects. China Energy Engineering Corporation is a Fortune 500 Company and currently one of the biggest power solution supplier companies in China and in the world.

CEO of Beximco Power Company Ltd, Ajmal Kabir, signed the agreement at Beximco Group’s head office. President Fu Hongwei signed the agreement on China Energy Engineering Corporation’s behalf. Beximco Group’s chairman Sohail F Rahman, its vice chairman Salman F Rahman, director Shayan F Rahman and Chinese Ambassador to Bangladesh Ma Mingqiang were present at the occasion. After signing the agreement, vice chairman of Beximco Group, Salman F Rahman said that it was a significant day for the company. He said the projects will have significant contribution in the energy sector of Bangladesh. Salman F Rahman is one of the top businessmen in Bangladesh and has always looked for new and challenging ventures. Signing agreements with China Energy Engineering Corporation of four energy projects is another feather to his list of contribution to Bangladesh’s economy.

Beximco Group plans to work on four major projects in Bangladesh with China Energy Engineering Corporation. Among these four, one is an 8 MW capacity solar power plant to be developed at the Beximco Industrial Park premises, one is a 660 MW coal fired power plant, and one is a 200 MW solar power plant in Gaibandha. The fourth one is on setting up a large nationwide distribution system. All projects will be developed with state of the art technology.

Beximco Group was founded in the early 1970’s by Sohail F Rahman and Salman F Rahman. The company has strong presence in both domestic and international markets.